সরকারি চিকিৎসকদের বাড়িতে ডেকে সস্ত্রীক কোভিড টিকা নিলেন মন্ত্রী, ঘরে বসে কেন, বিতর্ক চরমে

বাংলা বিজ ডেস্ক: ৬০ বছরের বেশি এবং কো-মর্বিডিটি রয়েছে এমন ৪৫ বছরের বেশি বয়সিদের জন্য চলছে করোনা টিকাকরণ। তবে সেটা হাসপাতাল অথবা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে গিয়ে নেওয়ার কথা। কিন্তু সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসকদের নিজের বাড়িতে ডেকে সস্ত্রীক টিকা নিলেন মন্ত্রী। যা নিয়ে চরমে উঠল বিতর্ক।

বাড়িতে বসে করোনা টিকা নেওয়ার কথা নিজেই জানান মন্ত্রী। সোশ্যাল মিডিয়ার পোস্টে ‘মেড ইন ইন্ডিয়া’ ভ্যাকসিনের সুখ্যাতি করে এক হাত নিয়েছেন গুজব রটনাকারীদের।

হাসপাতালে না গিয়ে এ ভাবে টিকা নেওয়ায় সমালোচনায় বিদ্ধ করছেন রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রীও। ঘটনায় প্রকাশ, কর্নাটকের কৃষিমন্ত্রী বিসি পাতিল এবং তাঁর স্ত্রী বাড়িতে বসেই করোনা টিকা নিয়েছেন। ৬০ বছর বয়সি পাতিল এবং তাঁর স্ত্রী (৪৫-এর বেশি) দু’জনেরই কো-মর্বিডিটি রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

মন্ত্রী টুইটারে লিখেছেন, “আমার হিরেকেরুর বাড়িতে স্ত্রীর সঙ্গে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন নিয়েছি। সরকারি চিকিৎসকরা আমার বাড়িতে এসে টিকা দিলেন। অনেক দেশই ‘মেড ইন ইন্ডিয়া’ ভ্যাকসিনগুলির প্রশংসা করছে। কিছু স্বার্থান্বেষী গোষ্ঠী ভ্যাকসিনগুলি সম্পর্কে মিথ্যা তথ্য ছড়িয়ে দিচ্ছে”।

এ ব্যাপারে কর্নাটকের স্বাস্থ্যমন্ত্রী কে সুধাকর বলেন, এটা হাসপাতালে গিয়ে নেওয়া উচিত। তবে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদ্দিয়ুরাপ্পা বলেছেন, ভ্যাকসিন নেওয়া সব থেকে জরুরি। সেটা কোথায় নেওয়া হল, তা গুরুত্বপূর্ণ নয়।

নিজেকে সমালোচনা থেকে আড়াল করতে কৃষিমন্ত্রী পাতিল বলেছেন, তিনি কোনো অপরাধ করে ফেলেননি। মানুষের ভিড় এড়ানোর জন্যই তিনি বাড়িতে টিকা নিয়েছেন।

আরও পড়তে পারেন: ভ্যাকসিনের জন্য নিজেই নাম লেখাতে পারবেন, জানুন কী ভাবে

Be the first to comment

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.