Telemedicine: আপনি কি অনলাইনে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে যাচ্ছেন? সুরক্ষার জন্য ৩টি পরামর্শ সরকারের

সহজ, দ্রুত এবং সুরক্ষিত কৌশল হতে পারে টেলিমেডিসিন কাউন্সেলিং। কিন্তু প্রতারণার ঝুঁকি থাকতে পারে।

বিবি ডেস্ক: করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিপর্যস্ত সারা দেশে। এই সংকটের পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষকে সাহায্যের জন্য টেলিমেডিসিন কাউন্সেলিং পরিষেবা চালু হয়েছে। তবে অন্যান্য ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মগুলির মতো এখানেও কিছু ত্রুটি রয়েছে, যা সুযোগসন্ধানীরাও সুবিধা নেওয়ার চেষ্টা করছে।

সরকার অনলাইনে টেলিমেডিসিন কাউন্সেলিং পরিষেবা ব্যবহার করার সময় সাধারণ মানুষকে সতর্কতা অবলম্বন করতে এবং সতর্ক থাকতে বলেছে। যাঁরা অনলাইনে চিকিৎসার পরামর্শ চান, তাঁদের সুরক্ষার জন্য তিনটি টিপস দিয়েছে সরকার। টুইটারে একটি পোস্টে সরকার এমন প্রতারণাকারীদের বিরুদ্ধে সতর্ক করে দিয়েছে, যারা চিকিৎসক সেজে সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে প্রতারণা করতে পারে।

এতে ব্যবহারকারীকে অগ্রিম টাকা না দেওয়া এবং কোনো রকমের আর্থিক লেনদেন করার সময় সতর্ক থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের অধীনে পরিচালিত একটি টুইটার হ্যান্ডেল ‘সাইবার দোস্ত’ এই টিপসগুলি অনলাইনে শেয়ার করেছে।

অনলাইন চিকিৎসা পরামর্শ নেওয়ার সময় সতর্কতা

১. জালিয়াতিরা নিজেরাই সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে এবং টেলিমেডিসিন-কাউন্সেলিংয়র নামে নিজেকে ডাক্তার হিসাবে পরিচয় দিতে পারে।

২. অগ্রিম দেওয়া অথবা আর্থিক লেনদেনের সময় সতর্কতা অবলম্বন করুন।

৩. টেলিমেডিসিন কাউন্সেলিং সংক্রান্ত অভিযোগ থাকলে আপনার নিকটস্থ থানায় অথবা www.cybercrime.gov.in-এ জানান।

হঠাৎ করে সারাদেশে করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার কারণে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা চাপের মুখে পড়েছে। হাসপাতালে বেড, অক্সিজেন ও জীবনদায়ী ওষুধের অভাবজনিত কারণে রোগীরা দুর্ভোগ পোয়াচ্ছেন। এমন পরিস্থিতিতে, চিকিৎসকদের সঙ্গে অনলাইন পরামর্শ তুলনামূলক ভাবে সহজ, দ্রুত এবং সুরক্ষিত কৌশল হতে পারে।

পড়তে পারেন: অমিতাভ বচ্চন থেকে অক্ষয়কুমারের মতো তারকাদের প্রথম পারিশ্রমিক জানলে অবাক হয়ে যাবেন

Be the first to comment

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.