পিছনে পড়ল ব্রিটেন, কী ভাবে বিশ্বের পঞ্চম বৃহত্তম অর্থনীতি এখন ভারত

বিবি ডেস্ক: বিশ্বের পঞ্চম বৃহত্তম অর্থনীতিতে পরিণত হল ভারত। এই স্থানটি দখলে ছিল ব্রিটেনের। এক ধাপ নেমে যুক্তরাজ্য এখন ষষ্ঠ স্থানে।

বিভিন্ন দেশের গড় জাতীয় উৎপাদনের পরিসংখ্যান-সহ যে তালিকা প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক অর্থ ভান্ডার (IMF)। তাতেই দেখা যাচ্ছে ২০২১-২২ অর্থবর্ষের শেষ ত্রৈমাসিকে লম্বা লাফ দিয়ে ব্রিটেনকে ছাপিয়ে গিয়েছে ভারত। মার্কিন ডলারের উপর ভিত্তি করে করা হয়েছে গণনাটি।

ব্রিটেনের অবনমন, ভারতের উত্তরণ

গত কয়েক মাস ধরেই তুমুল টানাপোড়েন চলছে ব্রিটেনের রাজনীতিকে কেন্দ্র করে। বিভিন্ন কারণে বিপর্যস্ত অর্থনীতির আবহেই চলছে নতুন নেতা বেছে নেওয়ার লড়াই। বরিস জনসনের পর কে হবেন প্রধানমন্ত্রী, তা নিয়েই চলছে জল্পনা। লিজ ট্রাস বনাম ঋষি সুনক লড়াইয়ের টানটান উত্তেজনার মধ্যেই বিশ্বের সবচেয়ে বড়ো অর্থনীতির সর্বশেষ তালিকা প্রকাশ করল আন্তর্জাতিক অর্থ ভান্ডার।

চার দশকের মধ্যে দ্রুততম মুদ্রাস্ফীতির মুখোমুখি ব্রিটেন। রয়েছে মন্দার ক্রমবর্ধমান ঝুঁকি। এমন পরিস্থিতিতে ব্যাঙ্ক অফ ইংল্যান্ড বলেছে, এমন নীতি গ্রহণ করতে হবে, যাতে ২০২৪ সাল পর্যন্ত তা টেকসই হয়। ফলে মসনদে যিনিই বসুন না কেন এই কঠিন পরিস্থিতির মোকাবিলা করাই প্রধান লক্ষ্য তাঁর কাছে।

রিপোর্টে বলা হয়েছে, গত আর্থিক বছরের শেষ তিন মাসে ভারতীয় অর্থনীতির আকার ছিল ৮৫,৪৭০ কোটি ডলার। সেই জায়গায় ব্রিটেনের অর্থনীতির আকার ছিল ৮১,৬০০ কোটি ডলার। ত্রৈমাসিকের শেষ দিনে ডলারের বিনিময় হার ব্যবহার করে এটি সামঞ্জস্য করা হয়। সরকার প্রথম ত্রৈমাসিকের জিডিপি ডেটা প্রকাশ করার মাত্র দু’দিন পর এই রিপোর্ট সামনে এসেছে।

তবে এখানেই শেষ নয়, যুক্তরাজ্যের অর্থনীতির আরও পতনের সম্ভাবনা রয়েছে। দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে ব্রিটেনের জিডিপি মাত্র ১ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে এবং মুদ্রাস্ফীতির সঙ্গে সামঞ্জস্য করার পরে তা ০.১ শতাংশ সঙ্কুচিত হয়েছে। চলতি বছরে টাকার তুলনায় পাউন্ডের দাম প্রায় ৮ শতাংশ পতনের মুখোমুখি হয়েছে।

গতি ফিরে পেয়েছে ভারতীয় অর্থনীতি

উলটো দিকে, ভারতীয় অর্থনীতি এই বছর ৭ শতাংশের বেশি বৃদ্ধির পূর্বাভাস দিয়েছে। প্রকাশিত রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে, ভারতীয় অর্থনীতি বছরে ১৩.৫ শতাংশ হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। অর্থাৎ, গত বছর এপ্রিল-জুনের তুলনায় এ বছরের একই সময়ে জিডিপি-র বহর ১৩.৫ শতাংশ বেড়েছে।

তবে এই সংখ্যাটি আরবিআই-এর পূর্বাভাসের থেকে কিছুটা কম হলেও কোভিডের ধাক্কা কাটিয়ে ভারতের আর্থিক বৃদ্ধির হার যে ফের গতি পেয়েছে, সেটাই স্পষ্ট হচ্ছে। পাশাপাশি, উন্নয়নশীল দেশের মধ্যে বৃদ্ধির হারে সর্বোচ্চ ছিল ভারতের জিডিপি।

আন্তর্জাতিক অর্থ ভান্ডারের নিজস্ব পূর্বাভাস বলছে, ভারত এই বছর ডলারের ভিত্তিতে যুক্তরাজ্যকে ছাড়িয়ে যাচ্ছে। ওয়ার্ল্ডমিটারের প্রকাশিত বিভিন্ন দেশের জিডিপি তালিকা বলছে, শুধু মাত্র মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, চিন, জাপান এবং জার্মানির পিছনে রয়েছে ভারত। এক দশক আগে, ভারত বৃহত্তম অর্থনীতির মধ্যে ১১তম স্থানে ছিল, যেখানে যুক্তরাজ্য ছিল পঞ্চম।

আরও পড়ুন: সেপ্টেম্বরে বিচরণ দালাল স্ট্রিটের, বাজি ধরবেন কোন কোন স্টকে

Be the first to comment

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.