অর্থমন্ত্রী হিসাবে যে ৪টি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিয়েছিলেন অরুণ জেটলি

Arun Jaitley

বিবি ডেস্ক : শনিবার বেলা ১২ টা নাগাদ দিল্লির এইমস হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। বেশ কয়েক মাস ধরে তিনি অসুস্থ ছিলেন। অসুস্থতার জন্য দ্বিতীয় মোদী সরকারের কোন পদে থাকেননি তিনি। তবে প্রথম মোদী সরকারের অর্থমন্ত্রী হিসাব একাধিক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জেটলি।

এই পদক্ষেপগুলির মধ্যে চারটি হল:

পণ্য এবং পরিষেবা কর (জিএসটি)

দেশজুড়ে জিএসটি চালু করা ছিল অর্থমন্ত্রী হিসাবে জেটলির গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ। এক দেশে এক কর ব্যবস্থা, এই নীতির উপর ভিত্তি করেই জেটলি চালু করেছিলেন জিএসটি। অর্থমন্ত্রী হিসাবে এটি তাঁর বড় সাফল্য তা বলা যেতেই পারে।

দেউলিয়া কোড (আইবিসি)

দেউলে দশা এবং দেউলিয়া কোড (আইবিসি) অরুণ জেটলির একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ। অর্থিক দিক থেকে জিএসটি-র থেকে এটি বড় পদক্ষেপ বলা যেতে পারে। আইবিসি-র মাধ্যমে ২০১৯ সালে ৭ হাজার কোটি টাকা উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

ব্যাঙ্ক সংযুক্তিকরণ

অরুণ জেটলির আমলেই বেশ কয়েকটি ব্যাঙ্ক সংযুক্তিকরণ হয় ভারতে। দেনা ব্যাঙ্কে এবং বিজয়া ব্যাঙ্ক এক হয়ে যায় ব্যাঙ্ক অফ বরোদার সঙ্গে। অন্যদিকে পাঁচটি অ্যাসোশিয়েট ব্যাঙ্ক এবং ভারতীয় মহিলা ব্যাঙ্ক স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার সঙ্গে এক হয়ে যায়।

এফডিআই উদারীকরণ

দেশে সরাসরি বিদেশি বিনিয়োগের পথ সুগম করতে আইনকানুনকে লঘু করার উদ্যোগ নিয়েছিলেন অরুণ জেটলি। এর ফলশ্রুতিতে প্রতিরক্ষা, বিমা এবং বিমান পরিষেবার ক্ষেত্রে সরাসরি বিদেশি পরিমাণ বানতে শুরু করে।

এছাড়াও প্রথম মোদী সরকারের আমলে বিমুদ্রাকরণ একটি ‘বিতর্কিত’ পদক্ষেপ। এক অর্থে একে সাহসী পদক্ষেপও বলা যেতে পারে। সেই সময়। অর্থমন্ত্রীর চেয়ারে ছিলেন অরুণ জেটলি।

Be the first to comment

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.