যে কারণে জানুয়ারিতে খুচরা মুদ্রাস্ফীতি বেড়েছে ৭.৫৯ শতাংশ

নয়াদিল্লি : উপভোক্তা সূচক মূল্যের (সিপিআই) হিসাব অনুযায়ী জানুয়ারি মাসে খুচরা মুদ্রাস্ফীতি বাড়ল ৭.৫৯ শতাংশ। বুধবার জাতীয় পরিসংখ্যান অফিস (এনএসও) যে তথ্য প্রকাশ করেছে তাতে এই মুদ্রাস্ফীতি বৃদ্ধি হিসাব পাওয়া গিয়েছে। ২০১৪ সালের মে মাসের পর থেকে এটাই সবচেয়ে বৃহৎ আকারে মুদ্রাস্ফীতি।

রিজার্ভ ব্যাঙ্ক মুদ্রাস্ফীতি নিয়ন্ত্রণের রাখতে সর্বোচ্চ হার ৬ শতাংশে বেধে দিয়েছে। কিন্তু এই নিয়ে দ্বিতীয়বার মুদ্রাস্ফীতি হার ৬শতাংশ টপকে গেল।

ডিসেম্বর ২০১৯ উপভোক্তা মূল্যবৃদ্ধি ৭.৩৫ শতাংশে পৌঁছে গিয়েছিল। খাদ্য দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধির জন্যই এই মুদ্রাস্ফীতি বলে মনে করা হচ্ছে। খাদ্যদ্রব্যে মুদ্রাস্ফীতি জানুয়ারিতে ২০২০তে দাঁড়ায় ১৩.৬৩ শতাংশ। খাদ্যদ্রব্য ছাড়াও শাকসবজিরও দাম বেড়েছে উল্লেখযোগ্য হারে। প্রোটিন খাদ্য যেমন মাছ, মাংস, ডিমের দাম গত বছরের তুলনা জানুয়ারি ২০২০-এ বেড়েছে ১০ শতাংশ হারে।

স্বাস্থ্য এবং আবাসন ক্ষেত্রে মূল্যবৃদ্ধি হয়েছে বার্ষিক ৪.২ শতাংশ হারে। অন্যদিকে শিক্ষা হয়েছে ব্যয়বহুল। জানুয়ারি ২০২০-তে শিক্ষা ক্ষেত্রে ব্যয় বেড়েছে ৩.৯৩ শতাংশ হারে।

Be the first to comment

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.