পর্যটন শিল্পেও এবার থাবা বসালো আর্থিক মন্দা

বিবি ডেস্ক : প্রাথমিকভাবে আর্থিক মন্দার জেরে পর্যটন শিল্পের ক্ষতি না হলেও শেষ পর্যন্ত মন্দার থাবা থেকে বাঁচানো গেল না এই শিল্পকেও। ২০১৯ সালের প্রথম ভাগে মাত্র ২.১২ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে বিদেশি পর্যটকের হার। যা গত চার বছরের তুলনায় সর্বনিম্ন।

চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে জুন মাসের মধ্যে মোট ৬.০৮ মিলিয়ন বিদেশি টুরিস্ট পেয়েছে ভারত। ২০১৮ সালের একই সময় তা ছিল ৫.৯৬ মিলিয়ন। তবে মাত্র ৭.০৭ শতাংশ এই গ্রোথে সন্তুষ্ট নন ব্যবসায়ীরা।

ভারতের ট্র্যাভেল কর্পোরেশনের আধিকারিক দীপক দেব জানিয়েছেন, ব্রেক্সিট এবং ইউরোপ ও আমেরিকার বিশাল অংশে মন্দার আশঙ্কা মানুষের মধ্যে উদ্বেগ সৃষ্টি করেছে এবং মূলত সেই কারণেই তারা ভ্রমণের জন্য অর্থ ব্যয় করতে রাজি নয়। বিদেশি পর্যটকদের মধ্যে শীর্ষস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ, যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, চীন, শ্রীলঙ্কা, ফ্রান্স এবং কানাডা। প্রায় ৭৫ শতাংশ বিদেশি পর্যটক আসে এই দেশগুলোর থেকেই। কিন্তু, এই দেশগুলোর মধ্যে বেশিরভাগই অর্থনৈতিক মন্দা কিংবা অন্যান্য রাজনৈতিক সমস্যার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে।

বছরের শুরুতে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে তীব্র উত্তেজনা এবং তারপরে ভারতে প্রবেশের জন্য পাকিস্তানের বিমান পথ বন্ধ করে দেওয়ার প্রভাবও পড়েছে পর্যটন শিল্পের ওপর। ফলস্বরূপ, পর্যটন থেকে উপার্জিত দেশের বৈদেশিক মুদ্রাও বেশ কিছুটা হ্রাস পেয়েছে।

অন্য দিকে, শিল্প বিশেষজ্ঞরা মনে করেন যে বাড়তি ভিসা চার্জ এবং শ্রীলঙ্কা, থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া, ভিয়েতনামের মতো পর্যটন কেন্দ্রগুলির শক্ত প্রতিযোগিতা বিদেশী পর্যটকদের আগমনে শ্লথ এনেছে।

Be the first to comment

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.