টিকটকের পর আলিবাবা-কে নিষিদ্ধ করতে পারেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

বাংলাbiz ডেস্ক: চিন-আমেরিকার (US-China) মধ্যে রাজনৈতিক দ্বন্দ্বের প্রভাব ক্রমশই বিস্তৃত হচ্ছে দু’ দেশের ব্যবসায়িক সম্পর্কে। টিকটকের পর এ বার চিনা ই-কমার্স সংস্থা আলিবাবা-কে মার্কিন মুলুকে নিষিদ্ধ করার কথা ভাবছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট (US President) ডোনাল্ড ট্রাম্প (Donald Trump)।

এক সাংবাদিক সম্মেলনে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে যখন জিজ্ঞাসা করা হয়, তিনি আলিবারর মতো অন্য চিনা সংস্থাকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করবেন কিনা? উত্তরে ডোনাল্ড ট্রাম্প জানান, এ নিয়ে ভাবনাচিন্তা করা হচ্ছে।

আলিবাবা (Alibaba) যদি মার্কিন মুলুকে নিষিদ্ধ হয়, তা হলে টিকটকের (TikTok) পর তারাই হবে দ্বিতীয় সংস্থা যারা ট্রাম্পের কোপে পড়ে চিন-মার্কিন চলমান দ্বন্দ্বের বলি হবে।

গত ১৪ আগস্ট এক একজিকিউটিভ অর্ডার জারি করে টিকটকের মালিক বাইটড্যান্সকে(ByteDance) মার্কিন অংশের জন্য নতুন মালিক খুঁজে নেওয়ার কথা বলা হয়েছে। তা না হলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে ব্যবসা গোটাতে হবে ৯০ দিনের মধ্যে। এর আগে বাইটড্যান্সকে ৪৫ দিনের সময়সীমা দিয়েছিলেন ট্রাম্প।

আরও পড়ুন: প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে ভারতের পাশে দাঁড়াব, প্রতিশ্রুতি জো বিডেনের

অ্যাপটি মার্কিন যুব সমাজের কাছে এতটাই জনপ্রিয় যে নির্বাচনের আগে তা সম্পূর্ণ বন্ধ করে দিলে ভোটে প্রভাব পড়তে পারে। সে কারণে মালিকানা হাতবদল করে অ্যাপটি চালু রাখতে চাইছেন প্রেসিডেন্ট। তাই সময়সীমা বাড়ানোর রাস্তাতেই তিনি হাঁটছেন বলে মনে করা হচ্ছে।

ডোনাল্ড ট্রাম্প তাঁর আমলে মার্কিন-চিন ব্যবসায়িক সম্পর্কের ক্ষেত্রে আমূল পরিবর্তন করেছেন। নভেম্বরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নির্বাচন। করোনা আবহের মধ্যে সেখানে রাজনীতির পারদও চড়েছে।

খুব স্বাভাবিক ভাবে মার্কিন-চিন ব্যবসায়িক সম্পর্ক নিয়ে আলোচনা-চর্চা চলছে। এই পরিস্থিতিতে ট্রাম্পের এই আগ্রাসী পদক্ষেপের লক্ষ্য যে নির্বাচন তা বলাই বাহুল্য।

Be the first to comment

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.