এই ৮ রকমের মৃত্যু মেয়াদি জীবন বিমার আওতায় আসে না

Insurance

বিবিডেস্ক: বেশিরভাগ মানুষই জানেন যে, মেয়াদি জীবন বিমা বা টার্ম লাইফ ইন্সুরেন্স পলিসির মেয়াদের মধ্যে বিমাকৃত ব্যক্তি (পলিসি হোল্ডার)-র মৃত্যুর পরে মনোনীত ব্যক্তি (নমিনি)-কে এককালীন আর্থিক সুবিধা দেয়। তবে, অনেকেই জানেন না যে এমন কিছু মৃত্যুর ধরন রয়েছে, যেগুলি মেয়াদি জীবন বিমা পলিসির আওতাভুক্ত নয়। সুতরাং, যদি আপনার একটি মেয়াদি বিমা থাকে বা একটি কেনার পরিকল্পনা করে থাকনে, তবে ওই মৃত্যুর ঘটনাগুলি সম্পর্কে বিশদ জেনে নেওয়া জরুরি একটি বিষয়। কারণ, মেয়াদি বিমার নীতিমালায় সেগুলি অন্তর্ভুক্ত নয়।

১. পলিসি হোল্ডারের খুন

ঘটনা ১- যদি নমিনি একজন অপরাধী হয়

পলিসি হোল্ডার যদি খুন হন এবং তদন্তে প্রমাণিত হয় যে মনোনীত ব্যক্তি (নমিনি) এই অপরাধে জড়িত ছিল, তবে বিমার দাবি নিষ্পত্তি হবে না। খুনের অভিযোগ বাদ দিলে বা খালাস দেওয়া হলেই অর্থ প্রদান করা হবে।

ঘটনা ২- যদি অপরাধমূলক কাজে জড়িয়ে পলিসি হোল্ডার খুন হন

যে কোনও ধরনের অপরাধমূলক ক্রিয়াকলাপে জড়িত থাকার কারণে মৃত্যু বিমা আইনের আওতায় আসে না। তবে, যদি পলিসি হোল্ডার কোনও অপরাধমূলক রেকর্ড / অতীত থাকে, তা হলে প্রাকৃতিক কারণে মারা গেলে মনোনীত ব্যক্তি আর্থিক সুবিধা পাবেন।

২. অ্যালকোহলের প্রভাবে মৃত্যু ঘটলে

পলিসি হোল্ডারের মৃত্যু যদি অ্যালকোহল বা মাদকদ্রব্যগুলির প্রভাবের কারণে হয় তবে বিমাদাতা দাবিটি প্রত্যাখ্যান করতে পারে। প্রকৃতপক্ষে, যাঁরা প্রচুর পরিমাণে মদ্যপান করেন বা মাদকদ্রব্য গ্রহণ করেন,তাঁদের মনোনীত ব্যক্তি এ ধরনের মৃত্যুতে খুব কম সময়েই বিমার দাবি করে সফল হন। মেয়াদি বিমা পলিসি গ্রহণের সময় পলিসিধারক যদি এই অভ্যাসগুলি প্রকাশ না করে থাকেন, তবে বিমাদাতা মৃত্যু-বেনিফিট আটকে রাখবেন।

৩. ধূমপানের অভ্যাসটি প্রকাশ করা না হলে

কেউ যদি ধূমপায়ী হন তবে টার্ম ইন্সুরেন্স পলিসিটি গ্রহণের আগে অভ্যাসটি তাঁকে প্রকাশ করতে হয়। ধূমপায়ীদের স্বাস্থ্য ঝুঁকির একটি উচ্চ স্তরে থাকতে পারে এবং বিমাকারীরা প্রিমিয়ামে অতিরিক্ত পরিমাণ যুক্ত করেন। ধূমপানের অভ্যাসটি প্রকাশে ব্যর্থতা মৃত্য়ুর পরে বিমা সংস্থা বিমার দাবি অস্বীকার করতে পারে যদি ধূমপান সম্পর্কিত জটিলতার কারণে মৃত্যু ঘটে।

৪. বিপজ্জনক কর্মকাণ্ডে অংশ নিয়ে মৃত্যু

কোনো দু:সাহসিক কাজ বা বিপজ্জনক ক্রিয়াকলাপে অংশ নেওয়ার কারণে মৃত্যুর ক্ষেত্রে মেয়াদি বিমা কভার করে না। এই ক্রিয়াকলাপগুলি পলিসি হোল্ডারের জীবনকে সব সময়ই একটি হুমকির সম্মুখীন করে এবং এর ফলে মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটে। উদাহরণস্বরূপ গাড়ি এবং বাইক রেসিং, স্কাইডাইভিং, প্যারাগ্লাইডিং ইত্যাদির মতো অ্যাডভেঞ্চার স্পোর্টস করে থাকলে তা বিমাকারী যদি তথ্যটি প্রথম দিকে প্রকাশ না করেন, তবে মৃত্যুর পর দাবিটি গ্রহণ করতে বাধ্য নয় সংস্থা।

৫. প্রাক-বিদ্যমান স্বাস্থ্যের কারণে মৃত্যু

মেয়াদি বিমা পলিসি গ্রহণের সময় বিদ্যমান যে কোনও অসুস্থতার কারণে মৃত্যু, বিমাকারীর মনোনীতকে সুবিধা দেয়না। অন্যান্য ক্ষেত্রে যেমন স্ব-ক্ষতিগ্রস্থ আঘাতের কারণে মৃত্যু, এইচআইভি বা এইডস-এর মতো যৌন সংক্রামিত রোগ, ড্রাগের ওভারডোজ, আগাম সুরক্ষা না থাকায় চালকের মৃত্যুর ক্ষেত্রে দাবির নিষ্পত্তি হয় না।

৬. প্রসবের কারণে মৃত্যু

যদি গর্ভাবস্থার জটিলতা বা প্রসবের কারণে পলিসি হোল্ডারের মৃত্যু ঘটে, তবে বিমাকারীর মনোনীতকে বিমা সংস্থা আর্থিক সুবিধা প্রদান করে না।

৭. আত্মঘাতী মৃত্যু

পলিসি হোল্ডার যদি পলিসির মেয়াদের প্রথম বছরের মধ্যে আত্মহত্যা করেন তবে মনোনীত ব্যক্তি মৃত্যুর সুবিধা পাবেন না। তবে, বেশিরভাগ বিমা সংস্থা নীতি ও শর্ত সাপেক্ষে পলিসি কেনার তারিখ থেকে দ্বিতীয় বছর থেকে আত্মহত্যার কভারেজ দিয়ে থাকে।

৮. প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের কারণে মৃত্যু

যদি কোনও মেয়াদি বিমা পলিসিধারক ভূমিকম্প বা হ্যারিকেনের মতো প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে মারা যাযন, তবে মনোনীত ব্যক্তি আর্থিক সুবিধা পাবেন না।

Be the first to comment

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.