করোনা ভ্যাকসিন গবেষণার জন্য অক্সফোর্ড জেনার ইনস্টিটিউটকে অর্থ সাহায্য করলেন লক্ষ্মী মিত্তল

বিবি ডেস্ক : বিশ্ব জুড়েই করোনা ভ্যাকসিন তৈরির প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে। কে প্রথম বাজারে আনবে এই ভ্যাকসিন তা নিয়ে প্রতিদিন নতুন নতুন ঘোষণা। এরই মধ্যে অক্সফোর্ড জেনের ইনস্টিটিউটের করোনা ভ্যাকসিন গবেষণায় সাহয্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন ‘স্টিল ম্যাগনেট’ এবং আরসেলার মিত্তালের সিইও লক্ষ্মী মিত্তাল।

এই মুহূর্তে তাদের তৈরি করোনা ভ্যাকসিন কতটা মানবদেহে কার্যকরী তা নিয়ে গবেষণায় ব্যস্ত অক্সফোর্ড জেনের ইনন্স্টিটিউট। অধ্যাপক আদ্রিয়ান হিলের নেতৃত্বাধীন একটি গবেষক দল এই নিয়ে গবেষণা করছে। সেই গবেষণায় ৩২ লক্ষ পাউন্ড অর্থ সাহায্য করেছেন লক্ষী মিত্তল।

গবেষণার জন্য যে পদটি তৈরি করা হয়েছিল লক্ষ্মী মিত্তলের সন্মানার্থে তার নতুন নামকরণ করা হয়েছে। ‘লক্ষ্মী মিত্তল এন্ড ফ্যামিলি প্রফেসরশিপ অফ ভাইরোলজি’ নাম দেওয়া হয়েছে।

বিজনেস টুডে তার প্রতিবেদনে জানিয়েছে, মিত্তল প্রফেসর হিলের কাজকে খুব গুরুত্বপূর্ণ মনে করছেন। আগামী দিনে অতিমারীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এই ভ্যাকসিন হাতিয়ার হয়ে দাঁড়াবে।

মিত্তল বলেন, ‘‘ অন্যান্যদের মতো আমারও স্বাস্থ্যক্ষেত্রে আগ্রহ রয়েছে। বিশেষত কোভিন ১৯ ভ্যাকসিন নিয়ে যে সব গবেষণা হচ্ছে সেগুলি নিয়ে। অধ্যাপক হিলের সঙ্গে কথা বলার পর আমি এবং আমার পরিবার সিন্ধান্ত নিলাম, তিনি ও তাঁর টিম যে কাজ করছে তা শুধু অসাধারণই নয় খুব প্রয়োজনীয়। আমরা এই গবেষণার পাশে থেকে আনন্দিত।

অক্সফোর্ডের মেডিক্যাল সায়েন্স বিভাগের প্রধান গ্যাভিন স্ক্রিটন মিত্তল এবং তাঁর পরিবারকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

জেনার ইনস্টিটিউট ভ্যাকসিন গবেষণার ক্ষেত্রে শীর্ষস্থানে রয়েছে। ২০১৪ সালে ইবোলা প্রদুর্ভাবের বিরুদ্ধে প্রথম ভ্যাকসিন তৈরি শুরু করেছিল প্রফেসর হিলের নেতৃত্বাধীন টিম।

Be the first to comment

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.