ব্যাঙ্ক নিয়ে সরকারকে কী পরামর্শ দিলেন অভিজিত ব্যানার্জি

বিবি ডেস্ক : মন্দার দিকে চলা অর্থনীতিকে চাঙ্গা করতে হলে জোর দিতে হবে ব্যাঙ্কিং ব্যবস্থার সংস্কারে। নোবেল জেতার পর দেশের আর্থিক সমস্যা নিয়ে প্রশ্ন করা হলে এমনই জানিয়েছিলেন অভিজিত ব্যানার্জি। মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে দেখা করার পর এক সাংবাদিক বৈঠকে বাঙ্কিং ব্যবস্থা নিয়ে সুস্পষ্ট অভিমত ব্যক্ত ,করলেন নোবেলজয়ী।

তিনি বলেন, পাবলিক সেকটর ব্যাঙ্কগুলির সেন্ট্রাল ভিজিলেন্স কমিশনের (সিভিসি) ভয় ঢুকে আছে। তাদের এই ভয় কাটাতে হলে পাবলিক সেকটর ব্যাঙ্কগুলিতে সরকারের শেয়ার ৫১ শতাংশ থেকে কমিয়ে আনতে হবে। তবেই ব্যাঙ্ক সিভিসি-র ভয় এড়িয়ে  ঋণ দেওয়ার ব্যপারে সাহসী হবে।

সাংবাদিক বৈঠকের শুরুতেই উদ্যোক্তারা স্পষ্ট করে দেন কোনো রাজনৈতিক বা কোনো সাম্প্রতিক বিষয়ের উপর প্রশ্ন করা যাবে না। ফলে সাংবাদিকরা আর্থিক মন্দা নিয়ে প্রশ্ন করেন। এ প্রসঙ্গে ব্যাঙ্কিং ব্যবস্থা কোন অবস্থায় দাঁড়িয়ে আছে তা নিয়ে জানতে চাওয়া হয়। অভিজিত ব্যানার্জি সাফ জানিয়ে দেন পরিস্থিতি খুবই ‘সঙ্কটজনক’। ব্যাঙ্কগুলিকে সিভিসি ভয় কাটিতে সরকারকে নিজের শেয়ার কমিয়ে আনতে হবে। সিভিসি-র ভয়ে ব্যাঙ্ক তার নিজস্ব ক্ষমতা হারিয়ে ফেলছে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বৈঠক প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, মজা করে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘মোদী-বিরোধী বক্তব্য রাখার জন্য তাঁকে মিডিয়া ফাঁদে ফেলেছে।

এই বৈঠক প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী টুইটারে জানিয়েছেন, ‘নোবেলজয়ী অভিজিত ব্যানার্জি মানুষের ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে আবেগতাড়িত। তাঁর সঙ্গে নানা বিষয়ে কথা হয়েছে। তাঁর নোবেল জয়ের গর্বিত।

Be the first to comment

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.