উৎসবের মরশুমে যোগান অব্যাহত থাকবে রান্নার গ্যাসের

বিবি ডেস্ক : সৌদি তেল সংস্থার উৎপাদন কেন্দ্রে ড্রোন হামলার পর আশঙ্কা তৈরি হয়েছিল উৎসবের মরশুমে রান্নার গ্যাসের যোগানে ঘাটতি হবে। গ্যাস সরবরাহে রেশনিং ব্যবস্থা চালু হবে বলে খবর প্রকাশিত হয়েছিল। সেই খবর উড়িয়ে দিয়ে ভারতের তেল সংস্থাগুলো জানিয়ে দিয়েছে উৎসেবর মরশুমে যোগানে ঘাটতি হবে না।

ইন্ডিয়ান অয়েল জানিয়েছে, এই সময় বাড়তি চাহিদা মেটাতে তারা সব রকম ভাবে প্রস্তুত। প্রযোজনে বাড়তি গ্যাস আমদানি করবে বলে সংস্থাটি জানিয়েছে।

আর্মকো সহ যে সংস্থাগুলো এলপিজি সরবরাহ করে তারা প্রতিশ্রতি মতো গ্যাস সরবরাহ করবে। বাড়তি চাহিদা পূরণ করার জন্য দেশীয় সরবরাহ বাড়নো হবে বলে ইন্ডিয়ান অয়েল জানিয়েছে।

পুজোর মুখেই বাড়ল রান্নার গ্যাসের দাম

পুজোর মুখে মধ্যবিত্তের চিন্তা বাড়িয়ে রান্নার গ্যাসের দাম বৃদ্ধি হল। ভরতুকিহীন এলপিজি সিলিন্ডারের দাম একধাক্কায় বাড়ল ১৫ টাকা। এর ফলে কলকাতায় ভর্তুকিহীন গ্যাসের দাম বেড়ে দাঁড়াল ৬৩১.৫০ টাকা। মঙ্গলবার অর্থাৎ তৃতীয়ার দিন থেকেই এই দাম কার্যকর হবে বলে জানা গিয়েছে।

মাত্র একমাস আগেই দেশের বড় শহর গুলোতে সিলিন্ডার পিছু এলপিজি গ্যাসের দাম বেড়েছিল ১৫.৫ থেকে ১৬ টাকা পর্যন্ত। বর্তমানে আর্থিক মন্দার সঙ্গে পাল্লা দিতে ফের একবার দাম বাড়ল রান্নার গ্যাসের।

উৎসবের মরসুমে রান্নার গ্যাসের দাম বেড়েছে দিল্লী মুম্বাই ও চেন্নাইতেও। ফলে ৭৪.৫০ টাকা এবং চেন্নাইতে ভর্তুকীহীন সিলিন্ডার মিলবে ৬২০ টাকায়।

অন্যদিকে রান্নার গ্যাসের পাশাপাশি পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধিতে উৎসবের মুখে বড়সড় ধাক্কা খেল মধ্যবিত্ত। মঙ্গলবার কলকাতায় পেট্রলের দাম বেড়েছে ১৩ পয়সা। ডিজেলের দাম বেড়েছে ১০ পয়সা। এর ফলে শহরে লিটার পিছু পেট্রলের দাম বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭৭ টাকা ২৩ পয়সা এবং ডিজেলের দাম বেড়ে দাঁড়িয়েছে লিটার পিছু ৬৯ টাকা ৮৫ পয়সা। পুজোর আগে এই নিয়ে টানা দ্বিতীয়বার বাড়ল পেট্রোল ডিজেলের দাম।

Be the first to comment

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.