টার্গেট চিন, ফের এক দফা আমদানি নিয়ন্ত্রণে উদ্যোগ কেন্দ্রের

বাংলাBiz ডেস্ক : রঙিন টিভি, গাড়ির টায়ারের পর এবার আসবাব, খেলনা, খেলাধূলার সরঞ্জাম আমদানিতেও রাশ টানতে চাইছে কেন্দ্র।

এই ধরনের সরঞ্জাম আমদানি করতে হলে এবার আমাদানিকারী সংস্থাকে লাইসেন্স করাতে হবে। খুব শীঘ্রই এই নয়া ব্যবস্থা চালু করতে চাইছে মোদী সরকার।

নয়া এই নীতির লক্ষ্য যে চিন, তা বুঝতে অসুবিধা নেই। কারণ এই সমস্ত সামগ্রীর বেশিরভাগই আসে চিন থেকে।

এর পাশাপাশি, বেশ কয়েকটি পণ্যের আমদানি শুল্কও বাড়ানোর পরিকল্পনা করছে কেন্দ্র। তবে এক্ষেত্রে বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার কিছু বিধি আছে সেগুলি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এক সরকারি আধিকারিকের মতে, ‘শুল্ক বাড়িয়ে আমদানি কমানো পরিকল্পনা বেশির ভাগে ক্ষেত্রে সফল হয় না। তাছাড়া, পণ্যের উপর যদি আমদানি শুল্ক কম হয় তবে সমস্যা থেকেই যায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘ সেক্ষেত্রে শুল্ক নয় এমন কোনো ভাবে আমদানি নিয়ন্ত্রনের কথা ভাবতে হয়। তাই সরকার আবার লাইসেন্স প্রথা চালু করতে চাইছে। ’

২০টি শিল্প ক্ষেত্রে লাইসেন্স চালু করার ব্যাপারে ভারতে কাছে সুবিধা রয়েছে। সেগুলি হল, আসবাব, এয়ার কন্ডিশন, চর্মজ পণ্য, জুতো, অ্যাগ্রো-কেমিকেলস, রেডি-টু-ইট ফুড, ইস্পাত, অ্যালুমিনিয়াম, তামা, বস্ত্রবয়ন, বৈদ্যুতিক গাড়ি, গাড়ির যন্ত্রাংশ, টেলিভিশনের সেট-টপ বক্স, সিসিটিভি, ইথানল ও বায়োফুয়েল, খেলনা, খেলার সরঞ্জাম ইত্যাদি।

এই ধরনের পণ্যগুলির আমদানি নিয়ন্ত্রণে কী ব্যবস্থা নেওয়া যেতে পারে, তা নিয়ে বিভিন্ন শিল্প সংস্থা এবং এর সঙ্গে যুক্ত সংগঠনগুলির মতামত নিচ্ছে কেন্দ্র।

দেশেই ওই পণ্য উৎপান করে চাহিদা পূরণ করা সম্ভব কিনা সে বিষয়টিও খতিয়ে দেখতে মোদী সরকার।

আরও পড়ুন : লক্ষ্য কি চিন? রঙিন টিভি আমদানি নিয়ন্ত্রণ করল ভারত

Be the first to comment

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.