ডলারের তুলনায় টাকার দামে রেকর্ড পতন!

বিবিডেস্ক: মার্কিন ডলারের (ইউএসডি) তুলনায় আবার হ্রাস পেল ভারতীয় টাকার (রুপি) দাম। দুর্বল জিডিপি তথ্য এবং মার্কিন ডলারের শক্তিশালী বিস্তৃতির কারণে ভারতীয় টাকার দাম অনেকটাই পড়ে গেল মঙ্গলবার।

গত সোমবার গণেশপুজো উপলক্ষে শেয়ার বাজার বন্ধ ছিল। এ দিন বাজার খোলার সঙ্গে সঙ্গেই দেশীয় শেয়ারবাজারেও তীব্র পতন টাকার দামে চাপ সৃষ্টি করে। সেনসেক্সের পতন প্রায় ৮০০ পয়েন্ট ছাড়িয়ে গিয়েছিল- যা এই বছরের সবচেয়ে বড়ো পতন।

এ দিন বাজার খোলার সময় ডলার প্রতি টাকার দাম ছিল ৭১.৯৭ টাকা। এ ভাবেই পড়তে পড়তে এক ডলারের তুলনায় টাকার দাম দাঁড়ায় ৭২.৪১ টাকা। বাজার বন্ধের সময় যা গিয়ে ঠেকে ৭২.৩৯ টাকায়। এর আগের দিন বাজার বন্ধের সময় যা ছিল ৭১.৪০ টাকা। অর্থাৎ, প্রায় এক টাকার পতন দেখল এ দিনের টাকার দাম। গত ১০ মাস সময় কালে যা সর্বনিম্ন।

তবে এ দিন টাকার দাম পড়লেও সোনা এবং রুপোর দাম বাঁধা ছিল উপরেই।

বিশেষজ্ঞদের মতে, এ দিন টাকার দাম প্রভাব ফেলেছে ক্রমহ্রাসমান জিডিপি বৃদ্ধির হার।  গত শুক্রবার কেন্দ্রীয় পরিসংখ্যান দফতরের পেশ করা রিপোর্টে বলা হয়েছে, চলতি আর্থিক বছরের প্রথম ত্রৈমাসিকের (এপ্রিল-জুন) ডিজিপি বৃদ্ধির হার ঠেকেছে ৫ শতাংশে। এক বছর আগে এই হার ছিল ৮.২। অন্য দিকে গত ২০১৮-১৯ আর্থিক বছরের প্রথম ত্রৈমাসিকে এই হার ছিল ৫.৮ শতাংশ।

[ আরও পড়ুন: রিটায়ার্ডরাও মাসলম্যান! ]

একই সঙ্গে গত শুক্রবার ১০টি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ককে একত্রিত করে চারটি ব্যাঙ্কে পরিণত করার সিদ্ধান্তে শেয়ার বাজারে বিপরীত প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। তার চাপও বজায় ছিল টাকার দামে।

Be the first to comment

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.