এলআইসির আইপিও হলে চাকরি যাবে কি? উত্তর দিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী

চাকরি চলে যাবে কি? সংসদে জবাব দিলেন কেন্দ্রীয় অর্থ প্রতিমন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর।

বিবি ডেস্ক: কেন্দ্রীয় অর্থ প্রতিমন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর জানিয়েছেন, ভারতীয় জীবন বিমা কর্পোরেশনের (LIC) প্রস্তাবিত আইপিও কোনো কর্মচারীর চাকরি কেড়ে নেবে না। এ ছাড়াও তিনি বলেন, এলআইসি এবং বিনিয়োগকারী- উভয়েই এই পদক্ষেপের মাধ্যমে উপকৃত হবে।

রাষ্ট্রায়ত্ত বিমা সংস্থা লাইফ ইন্স্যুরেন্স কর্পোরেশন অব ইন্ডিয়া বা এলআইসিতে নিজের অংশীদারিত্ব বিক্রির সিদ্ধান্ত আগেই ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। স্টক এক্সচেঞ্জগুলিতে তালিকাভুক্ত করা হবে সংস্থাকে।

এলআইসির প্রাথমিক পাবলিক অফারের (IPO) মাধ্যমে সরকার তহবিল সংগ্রহ করবে। সরকার নিজের অংশীদারিত্ব বিক্রির মাধ্যমেই ওই তহবিল সংগ্রহ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

লোকসভায় কংগ্রেসের মনীশ তিওয়ারি এবং তেলেঙ্গানা রাষ্ট্র সমিতির নমা নাগেশ্বর রাও-এর প্রশ্নের জবাবে অনুরাগ আরও বলেন, এলআইসির আইপিও প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে এবং সরকার এই প্রতিষ্ঠানে আরও বেশি মানুষের কর্মসংস্থানের চেষ্টা করছে।

তিনি বলেন, “আইপিও আনার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। উপযুক্ত সময় এলেই জানিয়ে দেওয়া হবে যে বাজারে এর দাম কত। এর দাম বাজারে যথেষ্ট, এবং আরও বেশি মানুষ বিনিয়োগ করতে পারবেন। এটি একটা সদর্থক প্রচেষ্টা”। তিনি জোরের সঙ্গে বলেন, “এত কারও চাকরি চলে যাবে না, বরং বিনিয়োগকারী এবং এলআইসি উভয়েরই উপকার হবে”।

কংগ্রেস সাংসদ দেশের অর্থনৈতিক দুরবস্থার কথা উল্লেখ করলে অনুরাগ বলেন, “আমি এটা স্পষ্ট করে বলতে চাই যে অনেক সংস্থা বলেছে যে ভারত দ্রুত পুনরুদ্ধার করেছে এবং ভারতের অর্থনৈতিক বৃদ্ধি দ্বিগুণ অঙ্কে রয়েছে”।

প্রসঙ্গত, ২০২০ সালের বাজেট পেশ করার সময় কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন ঘোষণা করেন, স্টক এক্সচেঞ্জে নথিভুক্ত করা হবে এলআইসিকে। এর ফলে দেশের বৃহত্তম আইপিএ হতে চলেছে এলআইসি। এ ক্ষেত্রে বিদেশি বিনিয়োগের পথ প্রশস্ত হয়ে যাবে সংস্থায়।

আরও পড়তে পারেন: রেল, টেলিকম বেচে ১.৩ লক্ষ কোটি টাকা তুলবে কেন্দ্র

Be the first to comment

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.