প্রতিরক্ষা মজবুত করতে বিপুল অর্থ বরাদ্দ ভারতের

বিবি ডেস্ক : সেনাবাহিনী, নৌ ও বিমানবাহিনীকে আধুনিক এবং গতিশীল করার লক্ষ্যে প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে কেন্দ্র ১৩ হাজার কোটি টাকা খরচের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

আগামী কয়েক বছরের মধ্যে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ অস্ত্র, ক্ষেপণাস্ত্র, যুদ্ধবিমান, সাবমেরিন এবং যুদ্ধজাহাজ কিনবে ভারত।

জানা গিয়েছে, আগামী পাঁচ থেকে সাত বছরের মধ্যে সশস্ত্র বাহিনীর যুদ্ধক্ষেত্রে সক্ষমতা অর্জনের জন্য এই মেগা পরিকল্পনা তৈরি করেছে সরকার।

অগ্রাধিকারে রয়েছে ভারতীয় সেনার ২৬০০ কমব্যাট ফোর্স গাড়ির আধুনিকীকরণ এবং যুদ্ধে ব্যবহারে উপযুক্ত ১৭০০ নতুন কমব্যাট ফোর্স গাড়ি। আইএএফের জন্য ১১০ টি ফাইটার যুদ্ধবিমান কেনাও কেন্দ্রের পরিকল্পনাও রয়েছে।

সূত্রের খবর, এই মুহূর্তে সশস্ত্র বাহিনী পর্যাপ্ত পরিমাণ অর্থ বরাদ্দের জন্য চাপ দিচ্ছে, যাতে তারা উত্তর ও পশ্চিম উভয় সীমান্তে “দ্বি-সম্মুখ” যুদ্ধের যে সম্ভাবনা রয়েছে তা মোকাবিলার জন্য প্রস্তুত থাকতে পারে।
পাশাপাশি, নৌবাহিনীর ক্ষমতা বাড়াতে আগামী ৩-৪ বছরের মধ্যে ৫০০ বিমান এবং ২৪টি আক্রমণকারী সাবমেরিনের কেনার পরিকল্পনাও চূড়ান্ত হয়েছে বলে খবর।

সরকার আইএএফের সামগ্রিক যুদ্ধক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য বদ্ধপরিকর। এছাড়াও আন্তঃদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের প্রথম ব্যাচ অগ্নি-ভি কেও উদ্বোধন করা হবে। যা আকাশপথের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাকে আরও মজবুত করবে। ৫ হাজার কিমি স্ট্রাইক রেঞ্জ-সহ এই ক্ষেপনাস্ত্রটি পারমানোবিক ওয়ারহেড বহন করতে সক্ষম। আগামী কয়েকমাসের মধ্যেই এ নিয়ে মূল নীতিগত উদ্যোগ গৃহীত হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন : ব্যবসায় মন্দা, কেন্দ্রের দ্বারস্থ স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা

Be the first to comment

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.