অর্থনীতির স্বাস্থ্য ফেরাতে ছোট ও মাঝারি ব্যবসায়ই ভরসা কেন্দ্রের

GST Council Meet

বিবি ডেস্ক : দূর্বল অর্থনীতির স্বাস্থ্য ফেরাতে ছোট ও মাঝারি ব্যবসাই ভরসা কেন্দ্রের। শুক্রবার গোয়ায় বৈঠকে বসেছিল জিএসটি (GST) কাউন্সিল। হোটেল এবং আউটডোর ক্যাটারিং সার্ভিসের ক্ষেত্রে জিএসটি বোঝা কিছুটা কমানোর পাশাপাশি ছোট ব্যবসার উপর থেকে চাপ কিছুটা কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

তবে কাউন্সিল অটোমোবাইল এবং বিস্কুটের ক্ষেত্রে কর ছাড়ের প্রস্তাব বাতিল করে দিয়েছে। বদলে ছাড় দিতে চেয়েছে অসংগঠিত ক্ষেত্রকে।

এক আধিকারিক জানায়েছেন এই ছাড়ের ফলে আয়ে কতটা প্রভাব পড়বে তা হিসাব করা হয়নি। তবে বেশ কিছু শিল্পের ক্ষেত্রে এই ছাড় প্রযোজ্য হবে।

জিএসটি কাইন্সিলের এই বৈঠক পরিচালনা করেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। তিনি বলেন, হোটেল ভাড়ার ক্ষেত্রে জিএসটির স্ল্যাবের বদল করা হয়েছে।

নতুন স্ল্যাবে এক হাজার টাকা পর্যন্ত হোটেল ভাড়ার ক্ষেত্রে কোনো জিএসটি লাগবে না। এক হাজার টাকা থেকে সাড়ে সাত হাজার পর্যন্ত ভাড়ায় জিএসটি লাগবে ১২ শতাংশ, তার চেয়ে বেশি ভাড়ায় জিএসটি লাগবে ১৮ শতাংশ।

বর্তমান স্ল্যাবে ১০০০ থেকে ২,৫০০ টাকা পর্যন্ত ভাড়ায় জিএসটি ১২ শতাংশ, ২,৫০০ থেকে ৭,৫০০ চাকা পর্যন্ত ১৮ শতাংশ এবং তার উপরে ভাড়ার ক্ষেত্রে জিএসটি লাগে ২৮ শতাংশ।

আউটডোর ক্যাটারিং সার্ভিসের ১৮ শতাংশ থেকে নামিয়ে ৫ শতাংশ করা হল। তবে ইনডোর ক্যাটারিং-এ ১৮শতাংশ জিএসটি থাকছে।

এই নতুন জিএসটি আগামী ১ অক্টোবর থেকে চালু হবে। কাউন্সিল ছোট ব্যবসার ক্ষেত্রে ১৮-১৯ অর্থবর্ষে বার্ষিক রির্টান দাখিল করা থেকে ছাড় দিয়েছে। অর্থমন্ত্রী জানান জটিলতা এড়াতে আগামী দিনে আইন কিছু সহজ করা হবে।

এড়াছাও জিএসটির ক্ষেত্রে যেসব অদলবদল করা হয়েছ:

সব রকম পলিথিন ব্যাগের ক্ষেত্রে অভিন্ন ১২ শতাংশ হারে জিএসটি লাগানো হবে।

রত্ন ও গয়না ক্ষেত্রে শিল্পকে উৎসাহ দেওয়ার জন্য কাটা এবং পালিশ করা অপেক্ষাকৃত কম মূল্যবান

রত্লের ক্ষেত্রে জিএসটি ৩ শতাংশ থেকে ০.২৫ শতাংশে নামিয়ে আনার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

সুস্থ জীবনযাপনে উৎসাহ দেওয়ার জন্য ক্যাফিনেটেড পানীয়গুলিতে জিএসটি বাড়ানো হয়েছে 28% এবং অতিরিক্ত সেস 12% বাড়ানো যার বর্তমান হার 18 শতাংশ।

কাউন্সিল পাতা থেকে তৈরি কাপ এবং প্লেটের ক্ষেত্রে জিএসটির হার কম করেছে।

আমন্ড দুধের উপর কর ১৮ শতাংশ করা হয়েছে।

মহিলা অনুর্দ্ধ ১৭ বিশ্বকাপের জন্য ফিফা বা অন্য নির্দিষ্ট কোন ব্যক্তিকে পণ সরবরাহের ক্ষেত্রে জিএসিটি ছাড় দেওয়া হয়েছে।

Be the first to comment

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.