ক্রেডিট কার্ড আছে? ভালো ক্রেডিট স্কোর বজায় রাখতে এই ৫টি বিষয় মাথায় রাখুন

বিবি ডেস্ক : রঞ্জন পাড়ুই। বয়স ৩৪। মাঝে খুব আর্থিক সমস্যার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছিলেন। বেসরকারি সংস্থায় চাকরি করেন। মাইনে কুড়ি হাজারের উপরে। মাঝে মাইনে হতে একটু দেরি হচ্ছিল। ফলে মাসের শুরুতে পড়ে যাচ্ছিলেন টানাটানিতে।  সেই সময় হঠাৎ করে দেবদূতের মতো একটি সংস্থা ক্রেডিট কার্ডের অফার নিয়ে হাজির।

ক্রেডিট স্কোর ভালো থাকায় কার্ড পেয়েও যাচ্ছিলেন। অনেক ভেবে চিন্তে রাজি হয়ে গেলেন ক্রেডিট কার্ড নিতে।

কার্ড নিয়ে ভুলে গেলেন কার্ড শব্দটির আগে একটি ক্রেডিট শব্দ আছে। দুমাসের মধ্যেই কার্ডে ক্রেডিট লিমিট ছুঁয়ে ফেললেন। আবার প্রয়োজন পড়ায় নগদ টাকাও তুললেন।

এই অবধি বেশ চলছিল, কয়েক মাস পর আবার কোম্পানির মাইনে দিতে দেরি হল। ক্রেডিট কার্ডের টাকা ঠিক মতো দিতে পারলেন না। এক মাসে তো নুন্যতম টাকাও দিতে পারলেন। এর প্রভাব পড়ল রঞ্জনের ক্রেডিট স্কোরে।

এটি একটি সমস্যার বিষয়। শুধু ক্রেডিট কার্ড থাকলেই হবে না তার সঠিক ব্যবহার জানা চাই।  তাই ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করার সময় অবশ্য আপনাকে এই পাঁচটি বিষয় মাথায় রাখতে হবে।

১। ক্রেডিট লিমিট ছুঁয়ে ফেলা আপনার ক্রেডিট স্কোরের স্বাস্থ্যের পক্ষে ভালো নয়

ক্রেডিট লিমিট মানে সর্বোচ্চ যে পরিমাণ অর্থ আপনি কার্ড থেকে খরচ করতে পারেন। চাইলে আপনি পুরো অর্থই ব্যবহার করতে পারেন। কিন্তু ৩০ থেকে ৪০ শতাংশ পর্যন্ত অর্থ ব্যবহার করাই ভালো। পুরো অর্থ ব্যবহার করলে আপনার ক্রেডিট স্কোরে তার প্রভাব পড়তে পারে। ক্রেডিট ব্যবহারের গতিপ্রকৃতিও যাচাই করে ক্রেডিট ব্যুরো আপনার ক্রেডিট স্কোর নির্ধারণ করে। যারা ক্রেডিট লিমিটের ৩০ থেকে ৪০ শতাংশ মধ্যে খরচ করে তাদের ক্রেডিট স্কোর ভালো হয়।

২। একাধিক ক্রেডিট কার্ড সবার জন্য নয়

যার একাধিক ক্রেডিট কার্ড রয়েছে জানবেন তাঁর খরচের পরিমাণও বেশি। শোধ করার ক্ষমতা না থাকলে ঋণের বোঝা ক্রমশ বাড়বে।

তাছাড়া যার ক্রেডিট স্কোর খুব একটা ভালো নয় তাঁর একাধিক ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করা উচিত নয়। কারণ ঋণের বোঝা যত বাড়তে থাকবে, শোধ না করতে পারেন তার প্রভাব পড়বে ক্রেডিট স্কোরে।

৩। মাসিক প্রদেয় অর্থ পরিশোধ করতে না পারা কাম্য নয়

নানা কারণে আপনি মাসিক প্রদেয় অর্থ পরিশোধ করতে পারলেন না। এক বা দু’বারের বেশি সেটি কাম্য নয়। এর ফলে প্রভাব পড়তে পারে আপনার ক্রেডিট স্কোরে।

যদি ভুলে যাওয়ার কারণে টাকা দিতে না পারেন তবে অটো ডেবিট অপশন চালু রাখুন।

৪। নুন্যতম বকেয়া অবশ্যই পরিশোধ করুন

সাধারণ ভাবে গ্রাহকদের ন্যুনতম টাকা পরিশোধ না করে পুরো বকেয়া মেটানোতে উৎসাহ দেওয়া হয়। তবে অনেক পরিস্থিতি এমন তৈরি হয় যে নুন্যতম বকেয়া দেওয়া সম্ভব হয়। সেক্ষেত্রে অবশ্য নুন্যতম বকেয়া টাকা ফেরত দিন। তার চেয়ে কম দিলে আপনার ক্রেডিট স্কোরের উপর নেগেটিভ প্রভাব ফেলতে পারে। তাই নুন্যতম বকেয়া ফেরত দেওয়া নিশ্চিত করুন।

৫। ক্রেডিট কার্ড থেকে নগদ অর্থ না তোলাই  বুদ্ধিমানের কাজ

কারণ, ক্রেডিট কার্ডে নগদের উপর সুদ অনেক বেশি। তাছাড়া ক্রেডিট ব্যুরো একে সদর্থক চোখে দেখে না। ফলে নগদ তুললে আপনার ক্রেডিট স্কোরের স্বাস্থ্যের উপর প্রভাব পড়তে পারে।

আরও পড়ুন : Mutual Fund-এ বিনিয়োগের আগে যাচাই করুন নির্ভরযোগ্যতা

Be the first to comment

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.